মালদ্বীপ ভিসা কবে খুলবে ২০২৩: আশাকরি সবাই ভাল আছেন। আজকের এই ব্লগে আমরা আলোচনা করবো মালদ্বীপ ভিসা কবে খুলবে এই সম্পর্কে। আপনি যদি মালদ্বীপে যেতে চান বা মালদ্বীপে যাওয়ার জন্য ভিসা আবেদন করেছেন তাহলে মালদ্বীপ সম্পর্কে সম্পূর্ণ ধারণা পাওয়া আপনার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

[আপডেট] মালদ্বীপে কাজের ভিসা কবে চালু হবে? মালদ্বীপ ওয়ার্কিং ভিসা প্রসেস ২০২৩

মালদ্বীপ ভিসা কবে খুলবে ২০২৩

যাদের কাজের জন্য মালদ্বীপে যাওয়ার প্রবল ইচ্ছা আপনাদের তাদের জন্য আমাদের আজকের এই আর্টিকেলটি সাজানো হয়েছে কারণ আপনাদের মধ্যে অনেকেই রয়েছেন যারা এখনো পর্যন্ত জানেন না যে মালদ্বীপ ভিসা কবে খুলবে এই সম্পর্কে।

তাই আজ আমি আপনাদের জন্য সম্পূর্ণ একটি ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করব যেখানে আপনি মালদ্বীপ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন এবং মালদ্বীপের বর্তমানে কাজের ভিসা একই সাথে স্টুডেন্ট ভিসা সহ সকল বিষয়ে সুস্পষ্ট একটা ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করব।

আপনারা সবাই জানেন, করোনা প্যান্ডামিক সিচুয়েশনকে ইস্যু করে বাংলাদেশ থেকে কর্মী নেওয়া বন্ধ করে দিয়েছিল মালদ্বীপ। কিন্তু সারা বিশ্বে করোনার প্রকোপ কমে গেলেও বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিতে অনাগ্রহ প্রকাশ করছে মালদ্বীপ। এর পেছনে সুনির্দিষ্ট সুস্পষ্ট কি কারন রয়েছে সেটি আমাদের সকলেরই অজানা এবং ঠিক কবে বাংলাদেশীদের জন্য মালদ্বীপ সরকার ওয়ার্কিং ভিসা আবার চালু করবে সে বিষয়েও কোন সঠিক ধারণা নেই। তবে কিছু সূত্র থেকে জানা গিয়েছিল এই বছর মে মাস নাগাদ মালদ্বীপ সরকার বাংলাদেশীদের জন্য ওয়ার্কিং ভিসা চালু করতে পারে। গুরুত্বপূর্ণ এবং আপডেট সব তথ্য পেতে https://male.mofa.gov.bd/bn এ চোখ রাখুন। মালদ্বীপের বর্তমান ভিসা চালু রয়েছে কিনা সেটি জানতে চান তাহলে বাংলাদেশ দূতাবাস এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে জেনে আসতে পারবেন কারণ সেখানে আপডেট তথ্য দেয়া থাকে।

মালদ্বীপে কত টাকা বেতন পাওয়া যায় 

আপনি যে দেশেই যাবেন অবশ্যই কার মাধ্যমে মালদ্বীপে যাচ্ছেন সেটা সবচাইতে বড় বিষয় বিশেষ করে যারা মালদ্বীপে কাজের বিষয়ে যেতে যাচ্ছেন তাদের জন্য এটা আরো বেশি প্রয়োজন কারণ যারাই কাজের বিষয়ে মালদ্বীপ যাচ্ছে তারাই প্রচুর পরিমাণে টাকা খরচ করে যাচ্ছে।

আগে মালদ্বীপে শুধু টুরিস্ট ভিসা চালু ছিল। কিন্তু 6 বছর যাবৎ মালদ্বীপ সরকার টুরিস্ট ভিসার সাথে ওয়ার্ক পারমিট ভিসা ও বিজনেস ভিসা চালু করেছে। ওয়ার্ক পারমিট ভিসা চালু করার পর থেকে পৃথিবীর প্রায় অসংখ্য দেশ থেকে মানুষ কাজের ভিসা নিয়ে মালদ্বীপে যায়। আর কাজের ভিসায় মালদ্বীপের বেতনের পরিমাণ অনেক ভালো।

আপনি যদি কাজের ভিসায় মালদ্বীপে যান অথবা ওয়ার্ক পারমিট ভিসায় মালদ্বীপে গিয়ে কাজ করতে পারেন তাহলে আপনি 600 থেকে 1000 ডলার উপার্জন করতে পারবেন। আর বর্তমানে এক ডলার সমান 100 টাকা। যার ফলে আপনি যদি 600 ডলার উপার্জন করেন তাহলে আপনার 60000 টাকা উপার্জন হবে।

মালদ্বীপে কোন কাজের চাহিদা বেশি?

বর্তমানে মালদ্বীপে রিসোর্ট এর কাজ, ড্রাইভিং এর কাজ ও রাজমিস্ত্রি কাজের চাহিদা বেশি। এই তিন কাজের ক্ষেত্রে আপনার বেতনের পরিমাণ অনেক বেশি পড়বে। এখানে আপনি যদি ড্রাইভিং লাইসেন্স ভিসায় যেতে পারেন তাহলে আপনি এক লক্ষ টাকা পর্যন্ত উপার্জন করতে পারবেন।

যদি রিসোর্ট ভিসায় যান সে ক্ষেত্রে 80000 থেকে দেড় লক্ষ টাকা উপার্জন করতে পারবেন। আর রাজমিস্ত্রি ভিসায় গেলে আপনি অনায়াসে 70000 থেকে 90 হাজার টাকা উপার্জন করতে পারবেন। তাই আপনার যোগ্যতা অনুযায়ী তাদের পেশা বেছে নিন।

মালদ্বীপের ভিসা নীতি ২০২৩

মালদ্বীপ বিশ্বের সকল দেশের নাগরিকদের ৩০ দিনের জন্য ভিসা-মুক্ত বা আগমনের পর ভিসা মঞ্জুরী প্রদান করে থাকে শুধুমাত্র ভারতীয় এবং ব্রুনাইয়ের নাগরিকদের ছাড়া এবং আরো ৬০ দিনের জন্য সময় বাড়িয়ে নিতে ৭০০আরএফ (মালদ্বীপিয় রূপী) ফি নিয়ে থাকে।

Post a Comment

أحدث أقدم